নূরে মুজাসসাম হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার রওজা শরীফ উনার মাটি মুবারক৷সুবহানাল্লাহ

নূরে মুজাসসাম হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার রওজা শরীফ উনার মাটি মুবারক৷সুবহানাল্লাহ

Advertisements

নূরে মুজাসসাম হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার ক্বদম মুবারক উনার ছাপ মুবারক৷সুবহানাল্লাহ

নূরে মুজাসসাম হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার ক্বদম মুবারক উনার ছাপ মুবারক৷সুবহানাল্লাহ

সাহাবী গাছ৷

আজো বেঁচে আছে বিস্ময়কর ১৫০০ বছরের সেই

সাহাবি গাছ। ইংরেজিতে এ গাছকে বলা হয় The Blessed Tree.

শুনতে অবাক লাগলেও কিন্তু বেঁচে আছে গাছটি।

পৃথিবীতে এত পুরনো কোনো গাছ এখনো বেঁচে

আছে তা বিশ্বাসযোগ্য না হলেও কিন্তু সত্যি। সাহাবি গাছ এমনই

একটি

গাছ যে গাছটি অবিশ্বাস্যভাবে শত বর্গ কিলোমিটারজুড়ে

মরুভূমিতে গত ১৫০০ বছর ধরে দাঁড়িয়ে আছে। দেখতে

খুবই

সুন্দর গাছটি।

মরুভূমির রুক্ষ পরিবেশের কারণে জন্ম থেকেই

গাছটি ছিল পাতাহীন শুকনো কিন্তু একসময় আল্লাহ পাক উনার

হুকুমে গাছটি সবুজ পাতায় ভরে উঠে এবং আজ পর্যন্ত

গাছটি সবুজ শ্যামল অবস্থায় দাঁড়িয়ে আছে।

অবিশ্বাস্য এই গাছটি জর্ডানের মরুভূমির অভ্যন্তরে সাফাঈ

এলাকায় দণ্ডায়মান। জর্ডানের বাদশাহ আব্দুল্লাহ সর্বপ্রথম এই

স্থানটিকে পবিত্র স্থান হিসেবে ঘোষণা দেন।

৫৮২ঈসায়ী সনে সর্বশ্রেষ্ঠ নবী ও রসূল, হুযুর পাক

ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার বয়স মুবারক যখন ১২

বছর, তিনি উনার চাচা আবু তালিব উনার সঙ্গে বাণিজ্য উপলক্ষে

মক্কা থেকে তৎকালীন শাম বা সিরিয়ার উদ্দেশ্যে যাত্রা

করেন।

যাত্রাপথে উনারা সিরিয়ার অদূরে জর্ডানে এসে উপস্থিত হন।

জর্ডানের সেই এলাকাটি ছিল শত শত

মাইলব্যাপী বিস্তৃত উত্তপ্ত বালুকাময় এক মরুভূমি। হুযুর

পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম ও উনার চাচা আবু তালিব মরুভূমি

পাড়ি দেয়ার সময় ক্লান্ত হয়ে পড়েন। তখন উনারা একটু

বিশ্রামের জায়গা খুঁজছিলেন। কিন্তু আশপাশে উনারা কোনো

বসার জায়গা খুঁজে পাচ্ছিলেন না। চারদিকে যত দূর চোখ যায়

কোনো বৃক্ষরাজির সন্ধান পাচ্ছিলেন না।

কিন্তু দূরে একটি মৃতপ্রায় গাছ দেখতে পেলেন উনারা।

উত্তপ্ত মরুভূমির মাঝে গাছটি ছিল লতাপাতাহীন শীর্ণ ও

মৃতপ্রায়। উনারা মরুভূমির উত্তাপে শীর্ণ পাতাহীন সেই গাছটির

তলায় বিশ্রাম নিতে বসেন।

উল্লেখ্য, হুযুর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তিনি

যখন পথ চলতেন তখন আল্লাহ পাক উনার নির্দেশে মেঘমালা

উনাকে ছায়া দিত এবং বৃক্ষরাজি উনার দিকে হেলে পড়ে ছায়া

দিত।

হুযুর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তিনি উনার চাচাকে

নিয়ে যখন গাছের তলায় বসেছিলেন তখন উনাদের

ছায়া দিতে আল্লাহর নির্দেশে মৃতপ্রায় গাছটি সজীব হয়ে

উঠে এবং গাছটির সমস্ত ডালপালা সবুজ পাতায় ভরে যায়।

সেই গাছটিই বর্তমানে সাহাবি গাছ নামে পরিচিত।

এ ঘটনা দূরে দাঁড়িয়ে জারজিস ওরফে বুহাইরা

নামে একজন খ্রিস্টান পাদ্রি সবকিছু দেখছিলেন। আবু তালিব

হুযুর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনাকে নিয়ে পাদ্রীর

কাছে গেলে পাদ্রী বলেন, আমি কোনোদিন এই

গাছের

নিচে কাউকে বসতে দেখিনি।

পাদ্রী বলেন, গাছটিও ছিল পাতাহীন কিন্তু আজ গাছটি পাতায়

পরিপূর্ণ। এই ছেলেটির নাম কি ?

চাচা আবু তালিব উত্তর দিলেন ,মুহম্মদ! পাদ্রী

আবার জিজ্ঞাসা করলেন, উনার বাবার নাম কি?

হযরত আব্দুল্লাহ আলাঅহিস সালাম

মাতার নাম?

হযরত আমিনা আলাইহাস সালাম ৷

হুযুর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া উনাকে দেখে এবং

উনার পরিচয় শুনে দূরদৃষ্টি সম্পন্ন পাদ্রীর চিনতে

আর বাকি রইল না যে, এই সেই বহু প্রতীক্ষিত শেষ নবী!

চাচা

আবু তালিবকে ডেকে পাদ্রী বললেন, তোমার

সঙ্গে বসা বালকটি সারা জগতের নবী ও রসূল! এবং

এই জগতের শেষ নবী।

তিনি বলেন, আমি উনার সম্পর্কে বাইবেলে পড়েছি

এবং আমি ঘোষণা দিচ্ছি, এই বালকটিই শেষ নবী।

চাচা আবু তালিব ও হুযুর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম

উনারা যেই গাছের নিচে বসে বিশ্রাম নিয়েছিলেন

সেই গাছটি ১৫০০ বছর

আগে যে অবস্থায় ছিল আজো সেই অবস্থায়

জর্ডানের মরুভূমিতে দাঁড়িয়ে আছে।

গাছটি সবুজ লতা-পাতায় ভরা এবং সতেজ ও সবুজ।

আশ্চর্যের বিষয় এই যে, গাছটি যেখানে অবস্থিত

তেমন মরুদ্যানে কোনো গাছ বেঁচে থাকা সম্ভব

নয়। গাছটির আশপাশের কয়েকশ’ কিলোমিটার

এলাকার মধ্যে আর কোনো গাছ নেই।

গাছটির চারিদিকে দিগন্ত জোড়া শুধুই মরুভূমি আর

মরুভূমি। উত্তপ্ত বালুকাময় মরুভূমির মাঝে গাছটি

দাঁড়িয়ে থেকে আল্লাহ পাক উনার অসীম ক্ষমতার সাক্ষ্য

দিয়ে যাচ্ছে। সেইসঙ্গে হুযুর পাক

ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার স্মৃতি মুবারক

আঁকড়ে ধরে রেখেছে, যা আল্লাহ তা’য়ালা উনার

কুদরতি ক্ষমতার নিদর্শন।….(সুবহানাল্লাহ!

তরবারি মুবারক

নূরে মুজাসসাম,  হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার ব্যহৃত তরবারি মুবারক ৷সুবহানাল্লাহ

Sword Of Noor E Mujassam Habibullah Hujur pak Swallallahu Alaihi  Wa Sallam

Sword Of Noor E Mujassam Habibullah Hujur pak Swallallahu Alaihi Wa Sallam